Home Privacy Policy Disclaimer Sitemap Contact About
রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০১:১৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
আওয়ামী লীগ কোন হুমকি কে ভয় পায় না, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য প্রতিষ্ঠিত হবেই ধর্ষিতাকে ধর্ষণকারীর হুমকি, পুলিশের কাছে গেলে মাথা আর দেহ দুভাগ করে দিব গলাচিপায় জোর পূর্বক ধান কাটাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত ৬ বরকত উল্লাহ বুলুর আরোগ্য কামনায় মনিরামপুর যুবদলের উদ্যোগে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের. লীগের স্থানীয় সরকার নির্বাচন মনোনয়ন বোর্ডের সভা আজ। ভুটানের প্রধানমন্ত্রী, এফএম ডাঃ মোমেনের দ্রুত সুস্থতা কামনা করছেন গোলখালী ইউনিয়নবাসীর স্বপ্ন পূরণে কাওসার তালুকদারের বিকল্প কে? কোভিড -১৯ এর বিরুদ্ধে একটি হতে পারে গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার গোপালগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩ জন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের নতুন রেকর্ড

গলাচিপায় সবজির বাজার গরিবের নাগালের বাহিরে

সঞ্জিব দাস, গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ
  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২০
  • ৪৯ আপডেট পোস্ট

পটুয়াখালীর গলাচিপায় সবজির বাজার গরিবের নাগালের বাহিরে। লাগাম নেই সবজির বাজারে, দীর্ঘদিন ধরেই এ অবস্থা।

এর মধ্যেই অনেক সবজির কেজি ১০০ টাকা ছুঁয়েছে। আর বাকি সবজিগুলোও প্রায় ১০০ টাকার কাছাকাছি বিক্রি হচ্ছে। আর আলু এখন বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা কেজিতে। সরকার আলুর কেজি ৩০ টাকা নির্ধারণ করে দিলেও তার কোন প্রতিফলন নেই বাজারে। খুচরা ব্যবসায়ীরা ৪৫ থেকে ৫০ টাকা কেজিতে আলু বিক্রি করছেন- যা এক মাস আগেও ছিলো ৩০ টাকা। গলাচিপার বিভিন্ন বাজার ঘুরে এই চিত্র দেখা গেছে।

হঠাৎ আলুর এমন অস্বাভাবিক দাম বাড়ায় সম্প্রতি খুচরা ও পাইকারি সর্বোচ্চ দামে বেঁধে দিয়েছে সরকার। সরকারের নির্দেশে অনুযায়ী, খুচরায় প্রতিকেজি আলুর দাম হবে ৩০ টাকা। তবে সরকারের এ নির্দেশনার কোনো প্রতিফলন বাজারে দেখা যাচ্ছে না।

গলাচিপায় নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক ব্যবসায়ী জানান, ৩০ টাকা কেজি কিনতে না পারলে বিক্রি করবো কীভাবে? পাইকারিতে প্রতিকেজি আলু ৪০-৪২ টাকায় ক্রয় করেছেন। এতে করে অন্য খরচ যোগ করে এক কেজি আলু ৫০ টাকার নিচে বিক্রি করা সম্ভব না বলেও জানান তিনি।

এদিকে গত এক সপ্তাহ ধরে শিম, টমেটো, গাজর, বেগুন, বরবটি ও উস্তা ১০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। এখন শসাও ১০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। এর মধ্যে টমেটো ১২০ থেকে ১৪০ টাকা এবং গাজর ৮০ থেকে ১০০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। শিম ১২০ থেকে ১৪০ টাকা কেজি, আর শসার ৯০ থেকে ১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। যা গত সপ্তাহে ৬০ থেকে ৭০ টাকার মধ্যে ছিলো।

এছাড়াও বরবটির ৮০ থেকে ১২০ টাকা, বেগুন ৮০ থেকে ১১০ টাকা, উস্তা বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ১০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। এদিকে পটল ৭০ থেকে ৮০ টাকা কেজি এবং ঢেঁড়সের দাম বেড়ে ৭০ থেকে ৮০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। কাঁচা মরিচ ও পেঁয়াজসহ অন্যান্য সবজির দামও প্রায়ই একই অবস্থা। এ বিষয়ে পৌর শহরের বাসিন্দা সাজ্জাদ আহমেদ মাসুদ জানান, অনেক দিন ধরেই সবজির দাম বেশি হলেও এক সপ্তাহে ধরে যেন বাজারে আগুন। ১০০ টাকার সবজি কিনলে এক বেলাও ঠিক মতো হয় না।

এক সপ্তাহে শুধু সবজি কিনতেই খরচ হচ্ছে দেড় থেকে দুই হাজার টাকা। আমাদের মতো সাধারণ মানুষদের বাজারে যাওয়াই দুষ্কর হয়ে পড়েছে। নিত্য পন্যের দাম চড়াও থাকলে মধ্য বিত্ত ও নি¤œ বিত্তদের জন্য বাজার যেন হাতের নাগালের বাহিরে। পূর্ব বাজার থেকে সবজি ক্রয় করছিলেন জাকির চৌকিদার।

তিনি জানান, আমাদের কপাল থেকে সবজি প্রায় উঠে গেছে। বেশিরভাগ সবজির কেজি ১০০ টাকা। সবজির থেকে এখন বয়লার মুরগি সস্তা। কারণ বয়লার মুরগির কেজি ১২০ থেকে ১৩০ টাকার মধ্যে বিক্রি হচ্ছে।

এই খবর শেয়ার করে আপনার টাইমলাইনে রেখে দিন Tmnews71

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর tmnews71
© All rights reserved www.tmnews71.com
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: রায়তা-হোস্ট
raytahost-tmnews71